রবীন্দ্রনাথ-ঠাকুরের চোখের-বালি PDF আকারে ডাউনলোড করে নিন। - TipsNow24.Com
TipNow24.Com
আমাদের সাইটে ভিজিট করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। প্রতিটা টিউনে লাইক এবং আপনার মন্তব্য দেয়ার চেষ্টা করবেন।
Post Creator Info
*
Ashish
Online
's Bio

আমি যা কিছু জানি, সবকিছু জানাতে চাই।
Home » PDF Books » রবীন্দ্রনাথ-ঠাকুরের চোখের-বালি PDF আকারে ডাউনলোড করে নিন।
রবীন্দ্রনাথ-ঠাকুরের চোখের-বালি PDF আকারে ডাউনলোড করে নিন।

চোখের বালি pdf বাংলা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর লেখা একটি রোম্যান্টিক উপন্যাস বই। তার “চোখের বালি” বইয়ের একটি পিডিএফ (pdf) ফাইল ই বুক (eBook) আমরা অনলাইনে খুজে পেয়েছি এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (Rabindranath Tagore) এর অসাধারণ বইটি আপনাদের মাঝে শেয়ার করছি।  ২০২ পাতার চোখের বালি বাংলা বইটি (Bangla Boi) একটি অধিক পঠিত রোম্যান্টিক উপন্যাস যা ১৯০২ সালে দি স্কাই পাবলিশার্স প্রথম প্রকাশ করে।

বইয়ের বিবরণ

বইয়ের নামঃ চোখের বালি 

লেখকঃ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

প্রকাশিতঃ ১৯০৮

প্রকাশকঃ দি স্কাই পাবলিশার্স 

সাইজঃ ০২ এমবি

ভাষাঃ বাংলা (Bangla/Bengali)

পাতা সংখ্যাঃ ২০২ টি

বইয়ের ধরণঃ উপন্যাস 

ফরম্যাটঃ পিডিএফ (PDF)

চোখের বালি বই রিভিউঃ


রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর চোখের বালি বাংলা বইটি সম্পুর্ণ ফ্রীতে ডাউনলোড এবং পড়তে পারবেন। আমরা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর চোখের বালি বই এর পিডিএফ কপি সংগ্রহ করেছি এবং আপনাদের মাঝে তা শেয়ার করছি। বিনোদিনী মায়াবিনী ও ঈর্ষাকাতর মহেন্দ্রের সুখের সংসার। মহেন্দ্রকে সে যে দেবতাময় পূজোনীয় স্থানে এনে ফেলেছে এবং মহেন্দ্রের সততা, এবং বিনোদিনীকে তুচ্ছ করে বলেই সে হয়তো মনে মনে মহেন্দ্রকে ভালোবাসে। কিন্তু সেই মহেন্দ্র যখন বিনোদিনীর ছলনায় আকৃষ্ট হয়ে, তার নিপুণ জালে ধরা দেয়, আকাশের উজ্জ্বলতম নক্ষত্রটি যখন ধুপ করে পায়ের সামনে এসে গড়াগড়ি খায়, মহেন্দ্রের আত্ম অহংকারের প্রদীপ তখন নিমিষেই নিঃশ্বেসিত হয়। বিনদিনীর দৃস্টিতে সেই দেবতার জায়গায় যে অধিস্টিত হওয়ার ক্ষমতা রাখে শুধু বেহারী। মহেন্দ্রকে প্রত্যাক্ষান করে আশালতার কাছে ফিরিয়ে দিতে চাওয়া বিনোদিনী ছুটে যায় বেহারীর সন্ধানে। আশার সরলতা,মহেন্দ্রর কপটতা,বিহারীর পবিত্র প্রেম,বিনোদিনীর সংশয় -প্রেম মনস্তাত্ত্বিক বিশ্লেষণে এ বই অনবদ্য।


নিচের লিংক থেকে ০২ এমবির বইটি ডাউনলোড করে-নিন

চোখের বালি√√: এখানে ক্লিক করুন

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন একজন অগ্রণী বাঙালি কবি, ঔপন্যাসিক, সংগীতস্রষ্টা, নাট্যকার, চিত্রকর, ছোটগল্পকার, প্রাবন্ধিক, অভিনেতা, কণ্ঠশিল্পী ও দার্শনিক। তাঁকে বাংলা ভাষার সর্বশ্রেষ্ঠ সাহিত্যিক মনে করা হয়।[৩] রবীন্দ্রনাথকে গুরুদেব, কবিগুরু ও বিশ্বকবি অভিধায় ভূষিত করা হয়। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ৭ই – মে, ১৮৬১ সালে কলকাতার জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তাঁর পিতা ছিলেন ব্রাহ্ম ধর্মগুরু দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং মাতা ছিলেন সারদাসুন্দরী দেবী। রবীন্দ্রনাথের কাব্যসাহিত্যের বৈশিষ্ট্য ভাবগভীরতা, গীতিধর্মিতা চিত্ররূপময়তা, অধ্যাত্মচেতনা, ঐতিহ্যপ্রীতি, প্রকৃতিপ্রেম, মানবপ্রেম, স্বদেশপ্রেম, বিশ্বপ্রেম, রোম্যান্টিক সৌন্দর্যচেতনা, ভাব, ভাষা, ছন্দ ও আঙ্গিকের বৈচিত্র্য, বাস্তবচেতনা ও প্রগতিচেতনা। ১৯১৩ সালে গীতাঞ্জলি কাব্যগ্রন্থের ইংরেজি অনুবাদের জন্য তিনি সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। তাঁর রচিত আমার সোনার বাংলা ও জনগণমন-অধিনায়ক জয় হে গানদুটি যথাক্রমে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ ও ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের জাতীয় সংগীত।জীবনের শেষ চার বছর ছিল তাঁর ধারাবাহিক শারীরিক অসুস্থতার সময়। এই সময়পর্বে রচিত রবীন্দ্রনাথের কবিতাগুলি ছিল মৃত্যুচেতনাকে কেন্দ্র করে সৃজিত কিছু অবিস্মরণীয় পংক্তিমালা। দীর্ঘ রোগভোগের পর ১৯৪১ সালের ৭ই আগস্ট জোড়াসাঁকোর বাসভবনেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

আশা করছি, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর চোখের বালি বইটি পড়ে আপনাদের ভালো লাগবে।

Read More


Post Date: May 15, 2019 Total: 123 Views

Leave a Reply on TipsNow24.Com

You must be to post comment.

HIDE TipsNow24.Com - Info Center
Copyright © 2018 All rights reserved.